বিদ্যুৎ জগতের জনক

শিল্প বিপ্লবের মূল হাতিয়ার ইলেক্ট্রিসিটি। পাওয়ার জেনারেশন এরপর থেকে  তড়িৎ গতিতে পৃথিবীর চেহারা বদলে গেছে। ইলেক্ট্রিসিটি জেনারেশন করা হয় মূলত জেনারেটর থেকে। আর প্রথম জেনারেটর আবিষ্কার করেন মাইকে ফ্যারাড। মোটর এমন একটি ইলেক্টিক্যাল মেশিন যা ছাড়া  কলকারখানা কল্পনা করা যায় না। আর ইলেকট্রিক মোটর এর আবিষ্কারক মাইকেল ফ্যারাডে। শুধু তাই নয় ফ্যারাডে ট্রান্সফরমার আবিস্কার করেন। আবিষ্কার করেন ল' অব ইন্ডাকশন,  ল' অব ইলেকট্রোলাইসিস, ফ্যারাডে  কেজ,  কন্স্যাটন্ট, কাপ, ফ্যারাডে আইস পেইল ,  ওয়েভ,  রোটেটর,  ফ্যারাডে প্যারাডক্স ইত্যাদি ।


পরিচিতির কারণ


ফ্যারাডের আবেশ সূত্র

তড়িৎ-রসায়ন

ফ্যারাডের প্রভাব

ফ্যারাডের খাঁচা

ফ্যারাডের ধ্রুবক

ফ্যারাডে কাপ

ফ্যারাডে তড়িদ্বিশ্লেষণ আইন

ফ্যারাডে প্যারাডক্স

ফ্যারাডে চক্রকার

ফ্যারাডে-দক্ষতা প্রভাব

ফ্যারাডে তরঙ্গ

ফ্যারাডে চাকা

বলরেখা ইলেক্ট্রিসিটি তথা পাওয়ার সেক্টরের এই অসাধারণ ও অবর্ণনীয় অবদানের জন্য মিশেল আর এসকল কারণে ফ্যারাডকে বিদ্যুৎ এর পিতা বলা হয়। 


মাইকেল ফ্যারড এর সংক্ষিপ্ত পরিচয়


মাইকেল ফ্যারাডে ২২ সেপ্টেম্বর ১৭৯১ সালে ইংল্যান্ডে জন্মগ্রহণ করেন। ২৫ আগস্ট ১৮৬৭ সালে মৃত্যু বরণ করেন। ফ্যারাডের সহধর্মিণীর নাম ছিল সারাহ বার্নারড। ফ্যারাড স্কটিশ বিজ্ঞানী ও গণিতবিদ জেমস ক্লার্ক ম্যাক্সওয়েল দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন বলে জানা যায়।

বিদ্যুৎ সেক্টরের জনক মাইকেল ফ্যারাড
মাইকেল ফ্যারাড



Previous Post Next Post