পৃথিবীর ঠান্ডা জাহান্নাম সম্পর্কে জানুন

পৃথিবীর সবচেয়ে শীতলতম জায়গা ইয়াকুতস্ক


 আপনি কি জানেন পৃথিবীর সবচেয়ে শীতলতম জায়গার নাম কী?পৃথিবীর সবচেয়ে ঠান্ডা জায়গার নাম ইয়াকুতস্ক ( Yakutsk). ইয়াকুটস্ক রাশিয়ার স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল সাইবেরিয়াতে অবস্থিত। যেখানে বছরে সাত মাস বা তার চেয়ে বেশি সময় ধরে হাড় জমানো ঠান্ডা পড়ে।বছরের বিভিন্ন সময় ইয়াকুতস্ক অঞ্চলে  -২০ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে -৭১ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত তাপমাত্র নিচে নেমে যায়।

এখানকার লোকে গাড়ির ইঞ্জিন একবার বন্ধ করলে সাতমাস বা তার বেশি সময় ধরে গাড়িটা চালু করতে পারবে না। কারণ গাড়ির তেল জমে বরফে পরিণত হয়ে যাবে।যাদের টাকা আছে তারা গাড়ি সবসময় চালু রাখে অথবা গরম গ্যারেজে সংরক্ষণ করে।লোকে বাইরে চশমা চোখে যেতে পারে না।কারণ মুখের ত্বকের সাথে চশম ফ্রিজিং হয়ে আটকে যায়।জোর করে চশমা খুলতে গেলে চামড়া উঠে আসতে পারে।।একটি কলা বাইরে পাঁচ মিনিট রেখে দিলে তা হাতুড়ির চেয়ে শক্ত হয়ে যাবে।এখানে কোন খাবার পঁচে যায় না।খাবার রেখে দিলে বছরর পর বছর ধরে বিনা ফ্রিজে সংরক্ষণ করা যাবে।কারণ পুরো শহরটি একটি প্রাকৃতিক ফ্রিজ।

পুরো এলাকা প্রায় ৩০ মিটার বরফে ঢেকে থাকে।সব ধরেন পশু এখানে বাঁচতে পারে না।শুধু বড় লোমযুক্ত কুকুর,একধরনের ছোট ছোট ঘোড়া ও ভেড়া ছাড়া কোন পশু এখানে টিকতে পারবে না।কেউ যদি তার হাত বা কান খোলা রাখে তাহলে তা অবশ হয়ে যাবে এমনকি কান বা আঙুল কেটে ফেলতে হতে পারে।এখানকার মানুষ বড় লোমযুক্ত মোটা পোশাক পড়ে থাকে।রাশিয়াতে তেল গ্যাসে সমৃদ্ধ হওয়ায় লোকে আগুন বা হিটার দিয়ে তাদের ঘর গরম রাখে।

মৃত লোকদের ইয়াকুতস্কবাসী বরফের নিচে দাফন করে।চাইলে শতশত বছর পূর্বের মৃত মানুষ ও প্রাণীর দেহ খুঁজে বের করা সম্ভব। সবচেয়ে ভয়ানক কথা হলো এই বরফের নিচে চাপা পড়া হাজার হাজার বছর পূর্বে ভাইরাস। যদি বরফ গলতে শুরু করে তবে সেগুলো বের হয়ে আসবে।যা মানবজাতির জন্য চরম হুমকি।

এতো বিপদ থাকা সত্ত্বেও ইয়াকুতস্ক এর তিন লক্ষ নাগরিক এলাকা ছেড়ে যেতে চায় না।তার প্রকৃতি পূজা করে।প্রকৃতিকে রক্ষা, প্রকৃতিকে বিশুদ্ধ রাখা তাদের ধর্ম।মূলত ইয়াকুতস্কে ৩৮ ভাগ রাশিয়ান ও বেশিরভাগ তুর্কী বংশের লোক।অতীতে সরকার তার বিরোধীদের শাস্তি দিতে এই ইয়াকুতস্কে পাঠাতো।

পৃথিবীর এই সবচেয়ে শীতলতম জায়গা আমাদের জন্য জাহান্নাম মনে হলেও এখানকার আদিবাসীরা তাদের জায়গায় বেশ মানিয়ে নিয়েছে।

পড়ুন 

শীতকালে প্রচুর শীত আর গরমকালে প্রচুর গরম পড়ে কেন

Blogger দ্বারা পরিচালিত.